Green-Vegetable-Garden

সবজি বাগান তৈরির পরিকল্পনা

About Ishtiaque

Ishtiaque
আমি ইশতিয়াক এই WebSite এর Admin Officer আমি মূলত একজন IT Expert, তবে একই সাথে Photography এবং গাছপালা লাগানোর প্রতিও আমার সমান আগ্রহ আর সেই আগ্রহ থেকেই এবং গ্রাম বাংলার কৃষক এবং শহরের মানুষকে এই বিষয়ে আগ্রহী করে তোলার জন্যেই মূলত আমার এই WebSite টির পরিকল্পনা করা। আশাকরি আপনাদের সবার অনুপ্রেরনা এবং সমর্থন আমার সাথে থাকবে। ধন্যবাদ সবাইকে
Print Print
Pin It

কেন সবজি বাগানঃ

বাড়িতে সবজি বাগান করাটা একটা শখ যার মাধ্যমে আপনি আপনার মনের এবং চোখের ক্ষুধা মেটানোর সাথে সাথে কীটনাশক মুক্ত কিছু সব্জি  আপনার পরিবার কে উপহার দিতে পারছেন যা আপনার মন কে প্রশান্তি এনে দিবে ।এছাড়া এটা অর্থ সঞ্চয়ের একটি সহজ উপায়। যেমন ২৫ টাকার টমেটো গাছ সহজেই আপনার সারা বছরের ফলের উপযোগিতা পূরণ করতে পারে।

সবজি বাগান আপনাকে দিতে পারে বাগানের সুস্বাদু ও তরতাজা টমেটোর স্বাদ যা আপনাকে তৃপ্তি দিবে। প্রতি ক্ষেত্রেই, আপনার বাগানের উৎপাদিত সবজির স্বাদ এবং উপাদান অন্যান্য মুদি দোকানে প্রাপ্ত সবজি থেকে ভালো।

আবার সবজি চাষ আনন্দের খোরাক হতে পারে। এটা বাচ্চাদের সাথে সময় কাটানোর ভালো উপায় কিংবা ঘরের বাইরে রোদের মধ্যে সময় কাটানো থেকে ভালো মাধ্যম হতে পারে।

কিভাবে সবজি বাগান করতে হয় এবং তা থেকে কি ভাবে ভালো ফসল পাওয়া যায় তা ধারণা থেকেও বেশি সহজ। আপনার সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে অল্প পরিশ্রমে ও কম সময় ব্যয়ে একটি ফল এবং সবজি সমৃদ্ধ বাগানের মালিক হতে পারেন। ফুল, ফল এবং সবজি সমৃদ্ধ একটি বাগান মানে পরিবেশ বান্ধব কাজ করা যা আপনার একটি দৃষ্টিনন্দন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এর উপকরণও হতে পারে।

সবজি বাগানে চারা রোপণের পরিকল্পনাঃ

সবজি বাগানে চারা রোপণের সিদ্ধান্ত নিলে প্রথমেই স্বল্প পরিসরে শুরু করা উচিৎ। অনেক বাগানি আগ্রহের অতিসজ্জে প্রথমে অল্প পরিসরে শুরু করলেও মৌসুমের শেষে অধিক চাষ করে যা পরে অপচয় হয়।

যখন একটি সবজি বাগানের পরিকল্পনা করা হয় তখন পরিবারের চাহিদার কথা মাথায় রেখে পরিকল্পনা করতে হয়। মনে রাখতে হবে আলু, টমেটো এবং মরিচের মত সবজি সমগ্র মৌসুম ব্যাপী হয়, তাই আপনার পরিবারের চাহিদা পূরণের লক্ষে অধিক চারা রোপণের প্রয়োজন নাই। অন্যান্য সবজি যেমন গাজর, ঢ্যাঁড়স, ফুলকপি ইত্যাদি মৌসুমে একবারই হয়, তাই এই সবজি সমূহের চারা অধিক রোপণ করা উচিত।

বাংলাদেশে অধিক উৎপাদিত সবজি সমুহ নিচে দেয়া হল।

১। টমেটো

২। আলু

৩। বেগুন

৪। ফুলকপি

৫। বাধা কপি

৬। ঢ্যাঁড়শ

৭। শিম

৮। মরিচ

৯। পেপে ইত্যাদি।

পরিকল্পনার পর সবজি বাগান করার পরবর্তী ধাপ হল সঠিক স্থান সনাক্ত করা। সবজি উৎপাদনের ক্ষেত্রে মাটি, সূর্যালোক এবং পানির সহজ প্রাপ্যতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

সবজি বাগান করার একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল মাটি। বলা হয়ে থাকে “মাটিকে সঠিক খাবার দাও, চারা নিজেই নিজের খেয়াল রাখতে পারবে”। তাই সবজি বাগান করার আগে জানতে হবে আপনার কি ধরনের মাটি আছে এবং তা কোন সবজির জন্য কতটা উপযোগী। ভালো বাগান করার জন্য আপনার মাটিকে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস থেকে পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারেন।

 

 (ই )

3540 Total Views 2 Views Today

2 comments

  1. Shobji bagan er information khub dorkar chilo.amar tomato tree gula more jasse.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>