bonsai

একটি বনসাই কে কিভাবে training পট থেকে বনসাই পট এ স্হানান্তর করতে হবে

About Ishtiaque

Ishtiaque
আমি ইশতিয়াক এই WebSite এর Admin Officer আমি মূলত একজন IT Expert, তবে একই সাথে Photography এবং গাছপালা লাগানোর প্রতিও আমার সমান আগ্রহ আর সেই আগ্রহ থেকেই এবং গ্রাম বাংলার কৃষক এবং শহরের মানুষকে এই বিষয়ে আগ্রহী করে তোলার জন্যেই মূলত আমার এই WebSite টির পরিকল্পনা করা। আশাকরি আপনাদের সবার অনুপ্রেরনা এবং সমর্থন আমার সাথে থাকবে। ধন্যবাদ সবাইকে
Print Print
Pin It

একটি বনসাই কে কিভাবে training পট থেকে বনসাই পট এ স্হানান্তর করতে হবে তা অনেকেই ঠিক মতো জানি না বা বুঝতে পারি না, তাদের সুবিধার্থে বিডি বনসাই/মেঠোপথ  এর জন্যে  Living Art  এর  কে,এম,সবুজ এর একটি লেখা –

প্রথমে বনসাই এবং টবের front side নির্বাচন করব । এরপর ট্রেনিং pot থেকে বনসাইকে তুলে হুকের সাহায্যে বনসাইয়ের শিকড় বের করব । এতে সুবিধা হল গাছের নিচে অনেক সুন্দর সুন্দর শিকড় থাকতে পারে । যা বনসাইকে আরো বেশি আকর্ষনীয় করে তুলতে পারে । এর পর বনসাইয়ের অপ্রয়োজনীয় শিকড় গুলো কেচির মাধ্যমে কেটে নিব ।

এখন বনসাই এবং পটের front সমন্নয় করে পটের তলা থেকে তার দিয়ে বনসাইয়ের গোড়ার শিকড়ের সাথে ভাল ভাবে বেঁধে নিব , যাতে করে বনসাইটি বাতাসে বা ঝড়-বৃষ্টিতে  টব / Bonsai pot থেকে বিচ্ছিন্ন  হতে না পারে । এরপর বনসাইয়ের গোড়ায় ভালভাবে সার মাটি দিব ,যাতে শিকড়ের মাঝে কোথাও কোন ফাঁকা না থাকে ।এখন বনসাইটিকে ছায়া যুক্ত স্হানে ১-২ সপ্তাহ রাখব।আরো ১ সপ্তাহ দিনের অর্ধেক বেলা রৌদ্র , অর্ধেক বেলা ছায়া এমন স্হানে রাখব । পরবতী সপ্তাহ অথাৎ ২১ দিন পর আস্তে আস্তে পূর্ণ রৌদ্রে নিয়ে আসব , এসময় বনসাইকে প্রয়োজনমতো ২-৩ বেলা পানি দিব । এভাবে আমরা একটি বনসাইকে ট্রেনিং টব/পট থেকে বনসাই পটে স্হানান্তর করতে পারি ।

repotting

*খুব ছো্ট হলেও এই আর্টিকেলটা খুব সহজে সবাইকে re-potting এর বিষয়টা বুঝতে সাহায্য করবে ,এত সুন্দর একটি আর্টিকেল সবার সাথে শেয়ার করার জন্যে সবুজ ভাইকে অনেক ধন্যবাদ । অ্যাডমিন

..

বনসাই গাছের যত্ন এবং সংরক্ষণ বিষয়ে জানতে :

বনসাই গাছের যত্ন এবং সংরক্ষণ

কিভাবে মাটি তৈরী করতে হবে জানতে

আদর্শ মাটির বৈশিষ্ট

9042 Total Views 14 Views Today

6 comments

  1. আমি বনসাই এর সব ধরনের চারা কোথাই পাব plz aktu janan ?

  2. কোন কোন গাছের ভালো বনসাই করা যায়, দয়া করে জানালে খুশি হব।

    • Admin

      বনসাই করা যেতে পারে এমন গাছগুলো হল বট, বকুল, শিমুল, পাকুড়, তেতুল, বাবলা, পলাশ, বিলিতি বেল, ছাতিম, হিজল,নিম, গাব, শেফালী, পেয়ারা,ডালিম, তমাল,বহেরা, বরই,কামিনী,মেহেদী, কড়ই, অর্জুন, জারুল, করমচা,কৃষ্ণচূড়া, কদবেল, দেবদারু, হরিতকি, কামরাঙা, আমলকি, নীলজবা, লালজবা, অশ্বথ বট, নুডা বট, পাকুর বট, কাঠলি বট, রঙ্গন ছোট, রঙ্গন বড়, নিম সুন্দরী, লাল গোলাপ, খই বাবলা, কনকচাঁপা, বাগান বিলাস, লালা পাতাবাহার, লাল জামরুল, সন্ধ্যা মালতী হলুদ, যজ্ঞ ডুমুর, আলমন্ডা ইত্যাদি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>